মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

সিটিজেন চার্টার

 

 

  

  

 

 

  

  

 

 

  

  

 

 

  

  

 

ক্রমিক নং সেবা সমূহ নিয়ম/ প্রক্রিয়া
০১. হোল্ডিং নম্বর প্রদান

 ক) নতুন হোল্ডিং নম্বরে ক্ষেত্রে মেয়র বরাবর জমির মালিককে মালিকানা দলিল, খাজনার রশিদ, পর্চা সহ ১০/- (দশ) টাকা মূল্যের নির্ধারিত ফরমে আবেদন করতে হয়। আবেদনের প্রেক্ষিতে সরেজমিনে তদন্ত পূর্বক খালি জায়গায় (সীমানা নির্ধারিত থাকতে হবে) বার্ষিক মূল্যায়ন ১৭০/ (একশত সত্তর) টাকা নির্ধারন করতঃ নতুন হোল্ডিং নাম্বার প্রদান করা হয়। যদি জায়গার উপর কোন কাঠামো থাকে সে ক্ষেত্রে নির্ধারিত পদ্ধতিতে উক্ত কাঠামোর বার্ষিক মূল্যায়ন নির্ধারন করতঃ হোল্ডিং নম্বর প্রদান করা হয় ।

খ) প্রয়োজনীয় সকল তথ্য/দলিল পত্র প্রাপ্তি স্বাপেক্ষে খালী জায়গার ক্ষেত্রে ১৫ (পনের) দিনের মধ্যে এবং কাঠামো থাকার ক্ষেত্রে বার্ষিক মূল্যায়ন নিরুপন করতঃ হোল্ডিং নম্বর প্রদানের ক্ষেত্রে ১০ (দশ) দিনের মধ্যে প্রদান করা হয়।

০২.পঞ্চবার্ষিকী কর নির্ধারন

ক) প্রতি পাঁচ বছর অন্তর পঞ্চবার্ষিকী পৌরকর পূনঃ নির্ধারন করা হয়।

খ) বার্ষিক মূল্যায়নের উপর আপত্তি থাকিলে ১০/- (দশ) টাকা মূল্যের নির্ধারিত আপত্তি ফরমে আবেন করা যায়।

গ) আপত্তি শুনানি রিভিউ বোর্ডের মাধ্যমে আপত্তি দাখিলের ৩০ (ত্রিশ) দিনের মধ্যে বার্ষিক মূল্যমান পুনঃ নির্ধারন করা হয়।

০৩.হোল্ডি এর নামজারী

ক) খরিদ/দান/ওয়ারিশ সূত্রে আংশিক/সম্পূর্ন মালিকানা প্রাপ্ত হয়ে সংশি­ষ্ট হোল্ডিং এ নামজারী করতে ইচ্ছুক হলে আবেদনকারীকে হোল্ডিং এর মালিকানার রেজিষ্টার্ড দলিল, পর্চা, খাজনা রশিদ এর সত্যায়িত কপি সহ নির্ধারিত ১০/- (দশ) টাকা মূল্যো নামজারী ফরমে মেয়র বরাবর আবেদন করতে হয়। প্রাপ্ত আবেদনের বিষয়ে সংশি­ষ্ট হোল্ডিং এর পূর্ববর্তী সম্পূর্ন/ আংশিক মালিকের আপত্তি আছে কি নাতা জানতে চেয়ে নোটিশ প্রদান করা হয়। উক্ত নোটিশ প্রদানের ১৫ (পনের) দিনের মধ্যে আপত্তি না এলে নামজার্রীর আবেদটি কর্তৃপক্ষ কর্তৃক বিবেচনা করা হয়। উলে­খ্য এ ক্ষেত্রে হোল্ডিং এর পৌরকর হালসন পর্যন্ত পরিশোধ থাকতে হবে। নির্ধারিত ফিস আদায় করা হয়।

খ) আলোচ্য ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় সকল তথ্য/দলিল পত্র প্রাপ্তি স্বাপেক্ষে আপত্তি নোটিশ জারীর ৩০ (ত্রিশ) দিনের মধ্যে নামজারী সম্পাদন করা হয়।

                          [বিঃ দ্রঃ পৌরসভা আইন, বিধি, প্রবিধান, উপ-আইন, প্রজ্ঞাপন, পরিপত্র, আদেশ, অফিস স্মারক, বিজ্ঞপ্তি ও নোটিশ সাপেক্ষে এই সিটিজেন চার্টার

                                   প্রয়োজনীয় পরিবর্তন ও পরির্ধন করিবার ক্ষমতা পৌর কর্তৃপক্ষ সংরক্ষন করে।]

 

ক্রমিক নংসেবা সমূহনিয়ম/ প্রক্রিয়া
০১.হোল্ডিং পৃথকীকরন

ক) কোন হোল্ডিং এর পৌরকর পরিশোধের সুবিধার্থে সংশি­ষ্ট হোল্ডিং এর মালিকগনের আবেদনের প্রেক্ষিতে হোল্ডিং পৃথক করা হয়ে থাকে। হোল্ডিং মালিকের দাখিলকৃত মালিকানা সংক্রান্ত কাগজ পত্র সরেজমিনে তদন্ত এবং প্রয়োজনীয় শুনানী গ্রহনের মাধ্যমে সংশি­ষ্ট হোল্ডিং মালিকগনের নামে হোল্ডিং পৃথক করা হয়। উলে­খ্য এ ক্ষেত্রে সংশি­ষ্ট হোল্ডিং এর পৌরকর হালসন পর্যন্ত পরিশোধ থাকতে হবে।

খ) হোল্ডিং পৃথক করতে হলে প্রস্তাব অনুসারে ভূমি অফিস কর্তৃক আবেদনকারীগনের নামে আলাদা আলাদা নামজারীর স্বপকে।স পর্চা, খাজনার রশিদ, হোল্ডিং এর মালিকগনের মধ্যে আপোষ বন্টনামা। নির্ধারিত ফিস আদায় করা হয়। গ) প্রয়োজনীয় সকল তথ্য/দলিল পত্র প্রাপ্তি স্বাপেক্ষে ১০ (দশ) দিনে মধ্যে হোল্ডিং পৃথকীকরন বিষয়ে সিদ্ধান্ত প্রদান করা হয়।

 

কর আদায় শাখাঃ

ক্রমিক নং সেবা সমূহনিয়ম/ প্রক্রিয়া
০১.হোল্ডিং কর পরিশোধ ও বকেয়া কর আদায়

ক) লক্ষ্মীপুর পৌরসভা অফিসে এসে হোল্ডিং এর মালিক কর আদায় শাখায় আদায়কারীর নিকট রশিদ বইয়ের মাধ্যমে পৌরকর পরিশোধকরতে পারেন।

খ) আর্থিক বছরে ৩০ শে সেপ্টেম্বর এর মধ্যে কম্পিউটার রাইজড ট্র্যাক্স বিল ব্যাংকের মাধ্যমে হোল্ডিং মালিক গন কর পরিশোধ হাল সনের পৌরকর

      (i) প্রথম কিস্তি (জুলাই- সেপ্টেম্বর) পরিশোধ করলে ৫% রিবেট

    (ii) প্রথম দুই কিস্তি (জুলাই- ডিসেম্বর) অর্থ বছরে প্রথম তিন কিস্তি (জুলাই-মার্চ) অগ্রীম পরিশোধ করলে ৭.৫% রিবেট এবং

   (i i i) প্রথম চার কিস্তি (জুলাই-জুন) অগ্রিম পরিশোধ করলে ১০% রিবেট এর সুবিধা পাবেন।

গ) হাল সনের পৌরকর যথা সময়ে পরিশোধ করা না হলে নির্ধারিত আর্থিক বছর পরে হালসনের বকেয়ার উপর ৫% সারচার্জ আরোপিত হয়। এরুপ বকেয়া কর পরিশোধ না করা পর্যন্ত বকেয়ার উপর ৫% হারে সারচার্জ আরোপ হতে থাকে।

         [বিঃ দ্রঃ পৌরসভা আইন, বিধি, প্রবিধান, উপ-আইন, প্রজ্ঞাপন, পরিপত্র, আদেশ, অফিস স্মারক, বিজ্ঞপ্তি ও নোটিশ সাপেক্ষে এই সিটিজেন চার্টার

                 প্রয়োজনীয় পরিবর্তন ও পরির্ধন করিবার ক্ষমতা পৌর কর্তৃপক্ষ সংরক্ষন করে।]